1. admin@dailyrajbarinews.com : dailyrajbarinews :
  2. akmolbangladesh@gmail.com : Sheikh Faysal : Sheikh Faysal
December 4, 2022, 3:14 pm

বালিয়াকান্দিতে নারী সহকারী শিক্ষককে জুতাপেটা করার অভিযোগ

  • সর্বশেষ আপডেট Saturday, January 8, 2022
  • 125 মোট ভিউ

নিজস্ব প্রতিবেদক.

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলায় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে নারী সহকারী শিক্ষককে জুতা দিয়ে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে।

অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষকের নাম এ কে এম মাহবুবুল হক। তিনি বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউয়িনের পাটকিয়াবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। ভূক্তভোগি একই প্রতিষ্ঠানে সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, সকাল ৯টার দিকে বিদ্যালয়ে আসেন সহকারী শিক্ষিকা। বিদ্যালয়ে এসে তিনি সাবেক প্রধান শিক্ষক মুকুল কুমার সাহার বাবার শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠানে যাওয়ার জন্য প্রধান শিক্ষকের কাছে ছুটি চান। তিনি ১১টায় যেতে চান। কিন্তু প্রধান শিক্ষক তাকে দুপুর ১টায় যেতে বলেন। এনিয়ে উভয়ের মধ্যে বাগবিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে পা থেকে জুতা খুলে প্রধান শিক্ষক নারী শিক্ষককে আঘাত করেন। এতে তিনি মুখে ও নাকে আঘাত পান। এরপর তাকে চুল ধরে মাটিতে শুইয়ে ফেলেন। পরে লাঞ্চিত নারী শিক্ষকের স্বামী এসে প্রধান শিক্ষককে লাঞ্চিত করার চেষ্টা করেন। তবে এসময় আরও শিক্ষক উপস্থিত থাকায় কোন অপ্রীতিকর অবস্থার তৈরি হয়নি। পরে শিক্ষক নেতারা ঘটনাস্থলে উভয়পক্ষকে শান্ত করেন।

বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি বালিয়াকান্দি উপজেলা কমিটির সভাপতি শহীদুল ইসলাম বলেন, দুই শিক্ষকের মধ্যে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। আমরা তাদের এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (টিও) কাছে লিখিত ভাবে অভিযোগ দিতে বলেছি। তবে প্রধান শিক্ষক এক দুর্ঘটনার শিকার হওয়ার পর থেকে মানসিকভাবে অসুস্থ।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমি ঘটনার সময় ছিলাম না। খবর পেয়ে এসেছি। এসময় নারী শিক্ষক জুতা দিয়ে আঘাত করাসহ চুল ধরে মাটিতে শুইয়ে ফেলার অভিযোগ করেছেন। এর আগেও তিনি অপর নারী শিক্ষককে ছুরি দিয়ে ভয় দেখিয়ে ছিলেন। এক দুর্ঘটনার পর থেকে তিনি প্রায়ই রাগ ধরে রাখতে পারেন না। সহকর্মীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন।

ভূক্তভোগি নারী শিক্ষিক বলেন, আজ বিদ্যালয়ের অফিস খোলা। আমি সকাল ৯টায় বিদ্যালয়ে আসি। আমাদের সাবেক প্রধান শিক্ষক মুকুল কুমার সাহার বাড়িতে যাওয়ার জন্য ছুটি চাই। ছুটির বিষয় কেন্দ্র করে স্যারের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে স্যার উত্তেজিত হয়ে এই কাজ করেছেন।

তিনি আরও বলেন, প্রধান শিক্ষক আগেও দুই নারী শিক্ষককে লাঞ্চিত করেছেন। পরে ওই দুই শিক্ষক বিদ্যালয় থেকে বদলী হয়ে অন্য বিদ্যালয়ে চলে গেছেন।

অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক এ কে এম মাহবুবুল হক বলেন, বিদ্যালয়ে সময়মতো যাতায়াত না করা এবং ১২টার আগে দাওয়াত খেতে যাওয়া কেন্দ্র কওে সমস্যা হয়েছিল। পরে আমাদের শিক্ষক নেতারা এসে সমাধান করে দিয়েছেন।

বালিয়াকান্দি উপজেলার ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাসিবুল হাসান বলেন, বিষয়টি মৌখিক ভাবে শুনেছি। ভূক্তভোগি শিক্ষককে লিখিতভাবে অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। অভিযোগ পেলে তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। তদন্ত কমিটি অভিযোগের সত্যতা পেলে পরবর্তী আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

আপনার পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো নিউজ পড়ুন
© All rights reserved © 2021 | Daily Rajbari News
Theme Customized By Uttoron Host